মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক ক্লাস 7 ইতিহাস পার্ট 1 2022 | model activity task class 7 History part 1 2022

টেলিগ্রাম এ জয়েন করুন

Table Of Contents

Class 7 History Model Activity Task Part 1 january 2022

আজকের পোস্টে ক্লাস সেভেন এর ইতিহাস, মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক কোশ্চেনগুলো ডিসকাস করা হয়েছে প্রশ্ন মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক class 7 ইতিহাস (model activity task class 7 History part 1 2022) টি শেয়ার করলাম। যেটির মাধ্যমে তোমরা ইতিহাসের মডেল অ্যাক্টিভিটি প্রশ্ন উত্তর অল্প সময়ে করতে সহযোগিতা করবে। সুতরাং সময় নষ্ট না করে নীচে দেওয়া ইতিহাসের কোশ্চেন এর উত্তর গুলো পড়ে নাও বাটনে ক্লিক করে কুইজটিতে অংশ গ্রহণ করে নাও।

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক সপ্তম শ্রেণি ইতিহাস

পূর্ণমান- ২০

১. শূন্যস্থান পূরণ করো : ১×৩=৩

(ক) ‘ইন্ডিয়া’ নামটি প্রথম ব্যবহার করেছিলেন______

উত্তর : ‘ইন্ডিয়া’ নামটি প্রথম ব্যবহার করেছিলেন গ্রিক ঐতিহাসিক হেরােডােটাস

(খ) তাজমহল বানিয়েছেন সম্রাট________

উত্তর : শাহজাহান

(গ) বর্ধমান পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের একটি______মাত্র।

উত্তর : জেলা

২. ঠিক বা ভুল নির্ণয় করো :

(ক) ‘হিন্দুস্থান’ শব্দ দ্বারা সমগ্র ভারতকে বোঝানো হতো।

উত্তর : [su_dropcap style=”flat”]ঠিক[/su_dropcap]

(খ) পোর্তুগিজদের হাত ধরে ভারতে আলু খাওয়ার চল শুরু হয়।

উত্তর : [su_dropcap style=”flat”]ঠিক[/su_dropcap]

(গ) সাসানীয়দের শাসন ছিল ইরানে।

উত্তর : [su_dropcap style=”flat”]ঠিক[/su_dropcap]

৩. অতি সংক্ষেপে উত্তর দাও (একটি-দুটি বাক্য)

(ক) ইতিহাসের সময়কে কয়টি যুগে ভাগ করা হয়? কী কী?

উত্তর : ইতিহাসের সময়কে সাধারণ ভাবে তিনটি যুগে ভাগ করা হয়

যথা প্রাচীন, মধ্য ও আধুনিক যুগ

(খ) কোন সময়কালকে আদি-মধ্যযুগ বলা হয়?

উত্তর : রাতারাতি ইতিহাসের যুগ বদলে যায় না। ধরো দুপুর বেলার কথা। সেটা না সকাল বিকেল। তেমনই ভারতের ইতিহাসে একটা বড়ো সময় ছিলো, যখন প্রাচীন যুগ ধীরে ধীরে শেষ হয়ে আসছে আর মধ্যযুগ ও পুরোপুরি শুরু হয়নি। ঐতিহাসিকরা সেই সময়টিকে বলে আদি মধ্যযুগ

৪. নিজের ভাষায় লেখো (তিন-চারটি বাক্য)

(ক) ইতিহাসের উপাদান কী? উপাদানের বিভিন্ন ভাগগুলির উল্লেখ করো।

উত্তর : ইতিহাসের সব উপাদান একরকম নয়। একটি পুরোনো মূর্তি, পুরোনো মুদ্রা বা পুরোনো বই এক জিনিস নয়। তাই ইতিহাসের উপাদানগুলিকেও নানা ভাগে ভাগ করা হয়। যেমন লেখ মুদ্রা, স্থাপত্য-ভাস্কর্য ও লিখিত উপাদান। পাথর বা ধাতুর পাতে লেখা থেকে পুরনো দিনের অনেক কথা জানা যায় । সেগুলি কে বলে লেখ। তামার পাতের লেখা হলে তা হয় তাম্রলেখ । আবার পাথরের উপর লেখা হলে তা হয় শিলালেখ। আর কাগজে লেখা গুলিকে বলা হয়। লিখিত উপাদান।

(খ) মধ্যযুগের ভারত কেমন ছিলো?

উত্তর : আগে অনেকে বলতেন, সেসময়ে অন্ধকারে ডুবে গিয়েছিল মানুষের জীবন। কোনো কিছুতেই নাকি কোনো উন্নতি হয়নি। তবে আজকাল আর সে কথা মানা হয় না। টুকরো টুকরো

উপাদান জুড়ে ঐতিহাসিকরা সেসময়ের ইতিহাস লিখেছেন। তাতে দেখা যায়, তখন জীবনের নানান দিকে অনেক কিছুরই উন্নতি করেছিল ভারতের মানুষ ।

এক দিকে ছিল নানান নতুন যন্ত্র ও কৌশলের ব্যবহার। কুয়ো থেকে জল তোলা, তাঁত বোনা বা যুদ্ধের অস্ত্র- বিজ্ঞানের ছোঁয়ায় বদলে গিয়েছিল অনেক কিছুই। অনেক নতুন খাবার ও পানীয়ের কথা এই সময় জানতে পারে ভারতের লোক। এর সবচেয়ে মজার উদাহরণ হলো রান্নায় আলুর ব্যবহার। পোর্তুগিজদের হাত ধরে এদেশে আলু খাওয়ার চল শুরু হয়।

দেশ শাসনে আর রাজনীতিতেও নতুন অনেক দিক দেখা গিয়েছিল। শুধু রাজ্য বিস্তার নয়, জনগণের ভালো – মন্দের কথাও শাসকদের ভাবতে হয়েছিল। কখনও রাজার শাসন নড়বড়ে হয়ে গিয়েছিল। আবার কখনও সব ক্ষমতা একজন শাসকই হাতে তুলে নিয়েছিলেন। অর্থনীতিতে একদিকে ছিল কৃষি, অন্যদিকে ব্যাবসা বাণিজ্য। তৈরি হয়েছিল নতুন নতুন শহর। বন কেটে চাষবাস করার অনেক উদাহরণ পাওয়া যায়। কিন্তু শিল্প হোক বা সাহিত্য– সবেতেই সাধারণ গরিব মানুষের কথা খুব বেশি ছিল না। সেসবের বেশির ভাগই ছিল শাসকের গুণগানে ভরা।

টেলিগ্রাম এ জয়েন করুন

Leave a Comment