[Part 7] মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক দশম শ্রেণির ভূগোল পার্ট 7 ও হতিহাস | Model Activity Task Class 10 geography, history Part 7


সুপ্রিয় বন্ধুরা,

আজকের পোস্টে মাধ্যমিক গুগোল, ইতিহাস,গণিত, ভৌত বিজ্ঞান, জীবন বিজ্ঞান, English, বাংলামডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক দশম শ্রেণি Part 7 বাংলা, MODEL ACTIVITY TASK CLASS – X গুগোল (Model Activity Task Class 10 Geography Part 7) টি শেয়ার করলাম। যেটির মাধ্যমে তোমরা দশম শ্রেণি মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক প্রশ্ন উত্তর অল্প সময়ে করতে সহযোগিতা করবে। সুতরাং সময় নষ্ট না করে নীচে দেওয়া বাংলা, English,গণিত, ভৌত বিজ্ঞান, জীবন বিজ্ঞান, ইতিহাস, গুগোল কোশ্চেন এর উত্তর গুলো দেখে নাও।

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক দশম শ্রেণি ভূগোল | Model Activity Task Class 10  geography Part 7Model activity task Geography part 7

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক
দশম শ্রেণি
ভূগোল

১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখো :

১.১ মরু অঞ্চলের শুষ্ক নদীখাত হলো –
ক) প্লায়া
খ) হামাদা
গ) মরূদ্যান
ঘ) ওয়াদি

উত্তর :- ঘ) ওয়াদি

 

১.২ যে ক্ষয়কারী প্রক্রিয়া নদীর ক্ষয়কাজের সঙ্গে যুক্ত নয় সেটি হলো –
ক) অবঘর্ষ
খ) অপসারণ
গ) ঘর্ষণ
ঘ) দ্রবণ

উত্তর :- খ) অপসারণ

১.৩ উত্তর-পশ্চিম ভারতে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাব লক্ষ করা যায় –
ক) শীতকালে
(খ) গ্রীষ্মকালে
গ) বর্ষাকালে
ঘ) শরৎকালে

উত্তর :- ক) শীতকালে

 

১.৪ ভারতের বৃহত্তম তথ্য প্রযুক্তি শিল্প কেন্দ্র হলো –
ক) কলকাতা
খ) হায়দ্রাবাদ
গ) বেঙ্গালুর
ঘ) চেন্নাই

উত্তর :- গ) বেঙ্গালুর

 

২. একটি বা দুটি শব্দে উত্তর দাও :

২.১ বায়ুর প্রবাহপথে আড়াআড়ি অবস্থিত বালিয়াড়ি কী নামে পরিচিত ?

উত্তর :- বারখান বালিয়াড়ি।

২.২ হিমবাহের উৎপাটন প্রক্রিয়ায় সৃষ্ট একটি ভূমিরূপের নাম লেখো।

উত্তর :- করি বা সার্ক।

 

২.৩ ভারতের উপদ্বীপীয় মালভূমির একটি স্তূপ পর্বতের নাম লেখো।

উত্তর :- সাতপুরা পর্বত।

 

২.৪ ভারতের কোন মৃত্তিকা কার্পাস চাষের পক্ষে আদর্শ ?

উত্তর :- কৃষ্ণ বা রেগুর মৃত্তিকা

 

৩. সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও :

৩.১ বহুমুখী নদী উপত্যকা পরিকল্পনার দুটি উদ্দেশ্য উল্লেখ করো।

উত্তর :-

উত্তর- বহুমুখী নদী উপত্যকা পরিকল্পনার উদ্দেশ্য –

1) নদী উপত্যকায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

2) শিল্পে প্রয়োজনীয় জল সরবরাহ ও পানীয় জলের জোগান ।

 

৩.২ ভারতীয় কৃষির সমস্যা সমাধানের যে কোনো দুটি উপায় উল্লেখ করো।

উত্তর :- ভারতীয় কৃষির সমস্যা সমাধানের যে কোনো দুটি উপায় হল-

1) কৃষিতে উৎপাদন বাড়ানোর লক্ষ্যে রসায়নিক সারের ব্যবহার ক্রমশ বাড়াতে হবে।

2) ধাপ চাষ, সমোন্নতি রেখা বরাবর চাষ, উন্নত কৃষি ব্যাবস্থার প্রয়োগ করে মৃত্তিকায় প্রতিরোধ করতে হবে যাতে ফলে ফসল উৎপাদনের হার বাড়ে।

 

৪. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

৪.১ ‘ভারতীয় পরিবহন ব্যবস্থায় সড়কপথের গুরুত্ব অপরিসীম’ – বক্তব্যটির যথার্থতা বিচার করো।

উত্তর :- পরিবহন ব্যবস্থার ক্ষেত্রে সড়ক একটি অন্যতম প্রধান পরিবহন মাধ্যম। ভারতেও পরিবহন ব্যবস্থার ক্ষেত্রে সড়কপথের গুরুত্ব অপরিসীম

দ্রুততর পরিবহন : সড়কের মাধ্যমে যেকোনো জিনিস অতি সহজে অল্প সময়ের মধ্যে গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়া যায়।

কাঁচামালের সহজলভ্যতা : সড়কপথের দ্বারা সহজেই কৃষিজ ও কাঁচামাল তথা খনিজ কাঁচামাল খনি থেকে উত্তলোন করে শিল্প কেন্দ্রে পাঠানো যায়।

নির্মাণ ব্যয় কম : রেলপথের তুলনায় সড়কপথের নির্মাণ ব্যয় কম। তাই ভারতের মতো দেশে সড়কপথের বিকাশ ঘটলে অর্থনীতির ওপর কম চাপ পড়বে।

 

৫. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

৫.১ ভারতের জনবণ্টনের তারতম্যের প্রাকৃতিক কারণগুলি বর্ণনা করো।

উত্তর :- 1) ভূপ্রকৃতি : হিমালয় পার্বত্য অঞ্চল, উত্তর-পূর্ব এবং দক্ষিণ ভারতের পাহাড়ি অঞ্চলের ভূপ্রকৃতি বন্ধুর ও পাথুরে বলে কৃষিকাজের অনুপযুক্ত। এইসব অঞ্চল তাই জনবিরল। অপরদিকে, উত্তর ভারতের সমভূমি এবং উপকূলীয় সমভূমি অঞ্চল কৃষি, পরিবহন ব্যবস্থা, শিল্প প্রভৃতি ক্ষেত্রে উন্নত হওয়ায়, এইসব অঞ্চলের জনঘনত্ব খুব বেশি।

2) নদনদী: উত্তর ভারতের গঙ্গা, সিন্ধু ও ব্রহ্মপুত্র এবং দক্ষিন ভারতের মহানদী, গোদাবরী, কৃষ্ণা, কাবেরী, প্রভৃতি নদী উপত্যকা অঞ্চলের জনসংখ্যা বেশি। কারণ এইসব নদী থেকে খুব সহজেই জলসেচ, জলনিকাশি, জলবিদ্যুৎ উৎপাদন, জলপথে পরিবহন, পানীয় জলের সরবরাহ, মৎস্য চাষ প্রভৃতি নানা সুবিধা পাওয়া যায়।

3. মৃত্তিকা : মৃত্তিকার গুণাবলীর ওপর নির্ভর করে কৃষির ফল কেমন হবে । গঙ্গা অববাহিকায়, উপকূলীয় সমভূমিতে, ডেকানট্র্যাপ অঞ্চলে উর্বর মৃত্তিকার কারণে জনবসতি বেশি ।

4) বনভূমি : উত্তর-পূর্বের পার্বত্য ও পাহাড়ী অঞ্চল, আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের গভীর বনভূমিতে জনবসতি গড়ে ওঠার পক্ষে প্রাকৃতিক পরিবেশ অন্তরায়, তাই জনবসতি কম ।

[su_divider top=”no” divider_color=”#0d0c0c” size=”4″]

Part 7 মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক দশম শ্রেণি হতিহাস | Model Activity Task Class 10  History Part 7

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক
দশম শ্রেণি
ইতিহাস।

১. ‘ক’ স্তম্ভের সাথে ‘খ’ স্তম্ভ মেলাও

ক – স্তম্ভখ – স্তম্ভ
১.১ ক্যালকাটা স্কুল বুক সোসাইটিক) ১৭৮৪ খ্রি:
১.২ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়খ) ১৮১৭ খ্রি:
১.৩ এশিয়াটিক সোসাইটিগ) ১৯১৭ খ্রি:
১.৪ বসু বিজ্ঞান মন্দিরঘ) ১৮৫৭ খ্রি:

২. সঠিক তথ্য দিয়ে নীচের ছকটি পূরণ করো :

প্রতিষ্ঠানপ্রতিষ্ঠাতাপ্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য (একটি বাক্যে)
বেঙ্গল টেকনিকাল ইন্সটিটিউট
বসু বিজ্ঞান মন্দির
ইন্ডিয়ান অ্যাসোসিয়েশন ফর দ্য কাল্টিভেশন অব সায়েন্স
জাতীয় শিক্ষা পরিষদ

 

৩. দুটি বা তিনটি বাক্যে উত্তর দাও :

৩.১ উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরী কেন স্মরণীয়?

উত্তর :- 

 

৩.২ কাকে ‘বাংলা মুদ্রণশিল্পের জনক’ বলা হয় এবং কেন?

উত্তর :- 

৪. সাত-আটটি বাক্যে উত্তর দাও :

ছাপারই-এর সাথে শিক্ষাবিস্তারের সম্পর্ক আলোচনা কর।

উত্তর :- 


Leave a Comment